সাক্ষাৎকার  | সাহিত্যিক সাক্ষাৎকার

সাক্ষাৎকার | সঞ্জীব পুরোহিত

কবি ও ব্যক্তিমানুষ হিসেবে সঞ্জীব পুরোহিত কেমন সে কথা একটু বলি, তিনি একেবারে আলাদা ধাঁচের, জীবন আলাদা বলে কবিতা আলাদা, কবিতা আলাদা বলে, জীবন?। তা হয়তো নয়, কারণ কি, এ কালের কবি তাঁর সব জীবন কখনোই যাপন করেন না, করা সম্ভবও নয়, কবিতায় ধরা থাকে বাকিটা, অন্তর্জীবন। প্রথম প্রথম ইর্ষাতুর অসহায়তায় তাঁর মতো হতে না-পারার চিন্তা মগজে কিছুটা বিলি কাটতো, পরে বুঝে যাই আমি কোনোদিনই তাঁর মতো হতে পারবো না। সমালোচক ঝাল কষে বলবেন, কারো মতো হওয়ার ঠেকাটা বা কী—তা জানি, কিন্তু কোনোকিছুর ধার না ধেরে আমার যে কেন তাঁর মতো মানুষকেই খাঁটি কবি মনে হয়, হোক তা একুশ শতকে দাঁড়িয়ে। মাঝে মাঝে ভাবি, সুচের ফোঁড়ে তলপেট ঝাঁঝরা করে সঞ্জীব ইনসুলিন নেন, মনে হয় কী করে তিনি এতো আত্মবিশ্বাস জমা রাখেন। তিনি এটা পারেন। তাঁর চেহারায় সাঁওতালী ধরনের একটা ভাব আছে, পুরোটাই শক্তিভরা আকরিক। বিদ্যুৎ স্টেশনে বিপজ্জনক লেখা দেখে হা ক’রে তাকিয়ে থাকতাম ছোটোবেলায়—এতো হাজার কেপিআই, সাবধান। সঞ্জীবকে দেখলেও তা মনে আসে, মনে হয় তিনি একটা বায়োলজিক্যাল পাওয়ার হাউজ। ভয়ে একটু দূরে সরে যেতে ইচ্ছে করে, কেন, এর কোনো ব্যাখ্যা হয় না।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





মন্তব্য করুন

আলোচনায় অংশগ্রহণ করতে নিচের মন্তব্য-ফর্ম ব্যবহার করুন করুন: